চৌহালীসিরাজগঞ্জ

কম্বল নিয়ে রাতের আঁধারে বাড়িতে হাজির ইউএনও

চৌহালী প্রতিনিধি: রাতের আঁধারে কম্বল নিয়ে শীতার্তদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুব হাসা। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) রাত ১০টায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ৫০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা, ৭০ মুয়াজ্জিন-ইমাম ও খাষপুখুরিয়া মোকার ভাঙ্গা গ্রামে ১০০টি বাড়িতে গিয়ে অসহায় দরিদ্র শীতার্ত মানুষদের মধ্যে তিনি শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। রাতে তীব্র শীতে কষ্ট পাওয়া মানুষেরা শীতবস্ত্র পেয়ে খুশিতে আত্মহারা বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুয়াজ্জিন-ইমাম ও খাষপুখুরিয়া এলাকার ২২০টি অসহায় পরিবার।

এসময় উপজেলা প্রকল্পবাস্তবায়ন অফিসার মো. হেকমত আলী উপস্থিত ছিলেন।

খাষপুখুরিয়া গ্রামের আলেয়া বেগম প্রতিবেদককে বলেন, অনেক মানুষের কাছে গিয়েছি কেউ আমাকে একটা শীতবস্ত্র দেয়নি। বরং ফিরিয়ে দিয়েছে। কিন্তু রাতের আঁধারে ইউএনও স্যার আমার বাড়িতে ঢুকে কম্বল দিয়েছেন। এটা সত্যি অকল্পনীয়।

রহিম মিয়া বলেন, আমি রিকশা চালক। রাত হলে ছেলে মেয়ে নিয়ে শীতে খুব কষ্ট করি। রোজগার করার পাশাপাশি যেখানে শীতবস্ত্র দিচ্ছে খবর পেলেই দৌড়ে যাই, কিন্তু আমাকে কেউ একটা শীতবস্ত্র দেয়নি। আজ ইউএনও স্যার আমাকে আর আমার ছেলেকে বাড়ি এসে শীতবস্ত্র দিয়েছেন। এটা আমার জীবনের সব থেকে বড় পাওয়া। আজ রাতে শান্তিতে ঘুমাতে পারব।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আমজাদ হোসেন বলেন, শীতে রাতে ঘুমাতে অনেক কষ্ট হতো। অনেক সময় শীতের কারণে ঘুম ভেঙে যেত কিন্তু আজকে স্যার আমাকে একটা শীতবস্ত্র দিয়েছেন। আজ আমি শান্তিতে ঘুমাতে পারব।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুব হাসান বলেন, গত কয়েকদিন ধরে খুব শীত পড়েছে। সে জন্য রাতে উপজেলার ৫০ বীর মুক্তিযোদ্ধা ৭০ ইমাম-মুয়াজ্জিন ও খাষপুখুরিয়া ইউনিয়নের মোকার ভাঙ্গা এলাকায় ১০০টি শীতবস্ত্র আমি নিজে বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিতরণ করেছি। এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button