উল্লাপাড়াসিরাজগঞ্জ

উল্লাপাড়ায় প্রায় প্রতিরাতেই চুরি হচ্ছে ট্রান্সফরমার : অনিশ্চিত ইরি বোরো ধানের চাষ

উল্লাপাড়া প্রতিনিধি: থামছেই না উল্লাপাড়ায় ট্রান্সফরমার চুরি। প্রায় প্রতি রাতেই দুর্বৃত্তরা সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সঞ্চালন লাইন থেকে খুলে নিয়ে যাচ্ছে ট্রান্সফরমার।  গত ০৪ ফেব্রুয়ারি রাতে উপজেলার পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের সদাই গ্রামের মাঠ থেকে ৫টি ট্রান্সফরমার চুরি হয়েছে। এর আগে এই ইউনিয়নের রাঘববাড়িয়া, এনায়েতপুর, মনিরপুর, বেতবাড়ী, রামকান্তপুর, বনবাড়ীয়া, বন্যাকান্দি, বেতকান্দি, পূর্ব সাতবাড়িয়া গ্রামের মাঠ থেকে ১ মাস সময়ের মধ্যে মোট ২৫টি ট্রান্সফরমার চুরি হয়ে যায়। চুরি যাওয়া এসব ট্রান্সফরমারের মূল্য ক্ষমতা-ভেদে এক একটির দাম ৪৫ হাজার টাকা থেকে ৬৫ হাজার টাকা পর্যন্ত। চলতি  ইরি বোরো মৌসুমের শুরুতে এভাবে ট্রান্সফরমার চুরি যাওয়ায় চরম উৎকণ্ঠার মধ্যে পড়েছে সংশ্লিষ্ট এলাকার কৃষকেরা। সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে লিখিতভাবে অভিযোগপত্র দিয়েছেন উল্লাপাড়া মডেল থানায়। তবে এখন পর্যন্ত এই চুরি সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। 

সদাই গ্রামের মো. লাল মিয়া, আলামিন আকন্দ, জাহিদুল সরকার, নজরুল প্রামানিক, মো. জহুরুল ইসলাম প্রামানিক জানান, গত রাতে তাদের ফসলী জমির মাঠ থেকে রাতের যেকোন সময় ৫টি ট্রান্সফরমার চুরি করে নিয়ে গেছে চোরেরা। বর্তমানে ইরি বোরো মৌসুমের চাষাবাদ শুরু হয়েছে। পানি সেচের এখন খুব প্রয়োজন। কিন্তু ট্রান্সফরমার চুরি হয়ে যাওয়ায় তাদের মাঠে পানি সেচ বন্ধ হয়ে গেছে। এই মুহূর্তে  নতুন করে ট্রান্সফরমার কেনার মতো সামর্থ্য তাদের নেই। এ অবস্থায় ইরি বোরো চাষ নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে কৃষকদের মধ্যে।

পূর্ব সাতবাড়ীয়া গ্রামের খোরশেদ হোসেন, শাহাদত হোসেন, বেতকান্দি গ্রামের আল মাহমুদ, বন্যাকান্দি গ্রামের জাহিদুল ইসলাম, মনিরপুর গ্রামের আশরাফুল ইসলাম, বেতবাড়ী গ্রামের  আক্তার হোসেন, এনামুল হক, রামকান্তপুর গ্রামের নুর মোহাম্মাদসহ এলাকার কৃষকেরা অভিযোগ করেন, গত ১মাসে  তাদের ফসলি মাঠের বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাতিনর খুঁটি থেকে দুর্বৃত্তরা মোট ২৫টি ট্রান্সফরমার চুরি করে নিয়ে গেছে। চুরি যাওয়া ট্রান্সফরমারগুলোর মধ্যে ৫ কেভি ও ১০ কেভি ক্ষমতাসম্পন্ন ট্রান্সফরমার রয়েছে। যেগুলোর গড় মূল্য ৪৫ হাজার টাকা থেকে ৬৫ হাজার টাকা। এসব কৃষক জানান, নতুন করে ট্রান্সফরমার কেনার মতো সামর্থ তাদের নেই। ফলে আসন্ন ইরি বোরো মৌসুমে ধান চাষ নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় দিন কাটাচ্ছেন তারা। ভুক্তভোগী কৃষকেরা সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১ কর্তৃপক্ষের কাছে অর্ধেক মূল্যে নতুন করে ট্রান্সফরমার সরবরাহের অনুরোধ জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর মহা ব্যবস্থাপক আবু আশরাফ মো. ছালেহ্ এর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি ট্রান্সফরমার চুরি যাবার বিষয়টি স্বীকার করে জানান, ঘন কুয়াশার কারণে এখন চোরেরা রাতে সহজেই বিদ্যুৎ লাইন থেকে ট্রান্সফরমার খুলে নেওয়া সুযোগ পাচ্ছে।

তিনি আরও জানান, চোরেরা ট্রান্সফরমারগুলো চুরি পর ভেতরে থাকা মূল্যবান কয়েলগুলো খুলে নিয়ে বাইরে বিক্রি করে থাকে। এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি থেকে উল্লাপাড়া মডেল থানায় চুরি প্রতিরোধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য লিখিতভাবে অভিযোগ জানানো হয়েছে। সেই সাথে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের এলাকায় ট্রান্সফরমার চুরি রোধে রাতে পাহারার ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়েছে। অর্ধেক দামে ট্রান্সফরমার পাবার ব্যাপারে কৃষকদের অনুরোধ বিষয়ে মহা ব্যবস্থাপক বলেন, তার সমিতিতে এই মূহুর্তে কোন ট্রান্সফরমার নেই। থাকলে কৃষকদের অনুরোধ বিবেচনা করা যেত। এখন কৃষকদেরকে বাইরে থেকে ট্রান্সফরমার কিনতে হবে বলে উল্লেখ করেন আবু আশরাফ মো. ছালেহ্। এ বিষয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, ট্রান্সফরমার চুরির বিষয়টি থানা পুলিশ অবহিত। ইতোমধ্যেই পুলিশ গোপন তদন্তের মাধ্যমে বেশ কয়েকজন দুর্বৃত্তকে শনাক্ত করেছে। চোরাই মালামালেও কিছু তথ্য পেয়েছে পুলিশ। এদের গ্রেপ্তারের জন্য আপাততঃ নাম প্রকাশ করতে প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক। তবে পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নে প্রতিদিন রাতে পুলিশ পাহাড়ার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button