শাহজাদপুরসিরাজগঞ্জ

পরিশুদ্ধ মানুষ গড়ার প্রত্যয়ে শাহজাদপুরে আলোকবর্তিকার ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

শাহজাদপুর প্রতিনিধি : একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যুগোপযোগী সম্পূর্ণ ও পরিশুদ্ধ মানুষ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে পালিত হলো শিক্ষা ও সেবামূলক সংগঠন ‘আলোকবর্তিকা’র ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি উদযাপন করেছে সংগঠনটি।

গতকাল, ২১ জানুয়ারি, শনিবার ভোরে শাহজাদপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ৪০০ জন অসহায় শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।

এদিন দুপুরে সংগঠনের আলোকছটাদের (সদস্যদের), সাংবাদিক এবং সমাজকর্মীদের সংগঠনের পক্ষ থেকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিাত থেকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শাহ আজম।

প্রধান অতিথি উপাচার্য প্রফেসর ড. শাহ আজম তার বক্তব্যে বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছেন। আর তা বাস্তবায়নে নতুন প্রজন্ম সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখবে। প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশের যে রূপরেখা দিয়েছেন তার মূল কথাই হলো, স্মার্ট সিটিজেন, স্মার্ট ইকোনমি, স্মার্ট গভর্মেন্ট এবং স্মার্ট সোসাইটি তৈরি করা। প্রধানমন্ত্রীর এ লক্ষ্য অর্জনে ‘আলোকবর্তিকা’র আলোকছটারা দ্যুতি ছড়াবে বলেও আশা ব্যক্ত করেন উপাচার্য।

এদিকে ‘আলোকবর্তিকা’র আলোকছটা স্কুল শিক্ষার্থী সাবিহা সাবা সংগঠনের কার্যক্রম তুলে ধরে জানান, ২০১৯ সালের ৫ জানুয়ারি একঝাঁক আলোকছটাদের নিয়ে ‘আলোকবর্তিকা’র যাত্রা শুরু হয়। এরপর শাহজাদপুরে প্রথম স্থাপিত হয় মানবতার দেওয়াল। যেখানে মানুষজন তাদের অপ্রয়োজনীয় জামাকাপড় রেখে যেতেন এবং যাদের প্রয়োজন তারা নিয়ে ব্যবহার করেন। এছাড়া সংগঠনের উদ্যোগে কৃতী শিক্ষার্থীদের বই উপহার, একুশের চেতনায় সমৃদ্ধ করতে কর্মসূচি পালন, করোনা পরিস্থিাতিতে মাস্ক ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, কম্বল বিতরণ, পথচারী রোজাদারদের মধ্যে রান্না করা খাবার বিতরণ, কোরবানির মাংস বিতরণ, দুজন অসহায় নারীকে ঘর নির্মাণ করে দেওয়া, স্কুল ক্যাম্পাস পরিচ্ছন্ন কর্মসূচি, বৃক্ষ রোপণ, পাঠাভ্যাস তৈরি করতে পাঠাগার স্থাাপনসহ নিয়মিত মানবিক ও সামাজিক কাজের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সমৃদ্ধ পরিশুদ্ধ ও সম্পূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিন ‘আলোকবর্তিকা’র প্রতিষ্ঠাতা এবং শাহজাদপুর সরকারি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সুমনা আক্তার শিমুর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিাত থেকে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম সাইফুল ইসলাম, ৭১টিভির সাংবাদিক মাসুদ পারভেজ, শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি বিমল কুন্ডু, নন্দলালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. আজিম উদ্দিন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button